প্লাস্টিকের পাত্রে খাওয়া ঝুঁকিপূর্ণ

বর্তমান বিশ্বে প্লাস্টিক ছড়িয়ে আছে সর্বময়। আমরা প্লাস্টিকের থালায় খাই, প্লাস্টিকের বোতলে পানি পান করি, খাবার বহন করি। প্লাস্টিকের পণ্য ছাড়া যেন জীবনই চলে না আমাদের। এমনকি অনেক সময় প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার গরম করেও খাই।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্লাস্টিকের পাত্র ব্যবহারে রয়েছে স্বাস্থ্যঝুঁকি। প্লাস্টিকের কনটেইনারে খাবার রাখা ক্ষতিকর। জীবনধারাবিষয়ক ভারতীয় ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই-এর স্বাস্থ্য বিভাগে প্রকাশিত হয়েছে এ-সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন।

বিপিএ
প্লাস্টিকের মধ্যে রয়েছে বেসফানল এ (বিপিএ)। পানির বোতল বা শিশুদের বোতলে সাধারণ এই উপাদান ব্যবহার করা হয়। এমনকি বোতলজাত খাবারেও এটি পাওয়া যায়। বিপিএ হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ায়।

প্যাথেলেটস
সাধারণত পিভিসি পাইপ বা পারফিউমে প্যাথেলেটস পাওয়া যায়। উচ্চ পরিমাণ প্যাথেলেটস শরীরের জন্য ক্ষতিকর। এটি প্রজনন ক্ষমতায় বাজে প্রভাব ফেলে। পণ্য প্যাকেজিংয়ের সময়ে এটি ব্যবহার করা হয়।

প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার গরম করা
নিম্নমানের প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার গরম করা ঠিক নয়। এতে প্লাস্টিকের মধ্যে ব্যবহৃত উপাদান খাবারে প্রবেশ করে শরীরকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। প্লাস্টিকের পাত্রে খেলে এর মধ্য থেকে ক্ষতিকর অনেক উপাদান খাবারের মধ্যে চলে যায়।

১ থেকে ৭ নম্বরের প্লাস্টিক
আপনি কি এমন প্লাস্টিকের পাত্র ব্যবহার করেন, যার নম্বর ১ অথবা ৭? এর অর্থ হলো, এই পাত্রগুলো একবারই ব্যবহার করা যাবে, অর্থাৎ ওয়ান টাইম ইউজের জন্য তৈরি এসব পাত্র। এর বেশি যদি ব্যবহার করা হয়, তবে স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে।

প্লাস্টিকের বোতল
শিশুদের প্লাস্টিকের বোতলে খাওয়ানো ঠিক নয়। এর মধ্যে গরম জিনিস ভরলে বা প্লাস্টিকের বোতলে বা প্লেট ভরে খাবার গরম করলে, প্লাস্টিকের বিষাক্ত পদার্থ খাবারের মধ্যে চলে যেতে পারে, যা শরীরে গিয়ে স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

এই পাতাটি ৬০বার পড়া হয়েছে

স্বাস্থ্য প্রবন্ধ